জাবিতে বুয়েটের ছাত্রলীগ নেতাকে মারধর


, | Published: 11:28 AM, August 16, 2018

IMG

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে নিরাপত্তা কর্মকর্তা ও শিক্ষার্থীদের হাতে মারধরের শিকার হয়েছেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) শাখা ছাত্রলীগের এক নেতা। বুধবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরোনো প্রশাসনিক ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

ছাত্রলীগের ওই নেতা হলেন বুয়েটের যন্ত্রকৌশল বিভাগের  ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী তাহমিদ আহমেদ। তিনি বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের আহসানউল্লাহ হল ইউনিটের পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরোনো প্রশাসনিক ভবনের সামনে লেকের ধারের বেঞ্চে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের এক বান্ধবীর সঙ্গে বসে ছিলেন তাহমিদ। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা সুদীপ্ত শাহীন তাদের পরিচয় জানতে চান। তাহমিদ পরিচয় না দিয়ে উল্টো সুদীপ্ত শাহীনের পরিচয় জিজ্ঞেস করেন। এনিয়ে সুদীপ্ত শাহীনের সঙ্গে তাহমিদের বাগবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে তাহমিদকে চড়-থাপ্পড় দেন সুদীপ্ত শাহীন। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষার্থী সেখানে যান। তাঁদের সঙ্গেও তাহমিদের বাগবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রের বুকে লাথি দেন তাহমিদ। এরপর শিক্ষার্থীরা উত্তেজিত হয়ে তাঁকে মারধর করেন। পরে রাতে নিরাপত্তাকর্মীরা তাহমিদকে নিরাপত্তা কার্যালয়ে নিয়ে যান।

প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা সুদীপ্ত শাহীন বলেন, ‘তাহমিদ তাঁর বান্ধবীর সাথে আপত্তিকর অবস্থায় বসে ছিলো। এসময় তাঁর পরিচয় জানতে চাইলে সে উদ্ধত আচরণ করতে শুরু করে। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা তাঁকে গণধোলাই দেন। এরপর মুচলেকা নিয়ে তাহমিদকে তাঁর বান্ধবীর জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।’

যোগাযোগ করা হলে তাহমিদের ওই বান্ধবী বলেন, ‘আমরা বসে কথা বলছিলাম। এসময় সেখানে সুদীপ্ত শাহীন যান। তিনি নিজেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্টার পরিচয় দেন। পরে আমাদের পরিচয় জিজ্ঞেস করেন। আমরা পরিচয় দিলে তিনি অশ্লীলভাবে গালিগালাজ করতে থাকেন। এক পর্যায়ে অন্যায়ভাবে আমার অতিথিকে মারধর করেন তিনি ও কয়েকজন শিক্ষার্থী।’










ক্যাম্পাস বিভাগের আরও সংবাদ