রাশেদসহ ৮ জনের জামিন, নওশাবা কারাগারে


আদালত প্রতিবেদক,সেন্ট্রাল ডেস্ক | Published: 09:54 PM, August 20, 2018

IMG

কোটা সংস্কার এবং নিরাপদ সড়কের দাবিতে গড়ে ওঠা আন্দোলনের পর গ্রেফতার হওয়া সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদসহ ৮ জনের জামিন আবেদন অবশেষে মঞ্জুর করেছেন আদালত। তবে অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদের জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।


এর আগে সোমবার সকালে তাদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন আদালত।


এ বিষয়ে মামলার আইনজীবী জায়েদুর রহমান বলেন, সকালে কোটা সংস্কার আন্দোলনের সাত জনের জামিন আবেদন করলে আদালত তা নামঞ্জুর করেন। দুপুরে জামিনের জন্য আমরা পুনরায় আবেদন করলে ঢাকা মহানগর হাকিম সরাফুজ্জামান আনছারীর আদালত তা মঞ্জুর করেন।


এসময় নিরাপদ সড়ক আন্দোলন চলাকালীন দুই ছাত্রের মৃত্যু নিয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেফতার লুৎফুন্নাহার লুনারও জামিন আবেদন করেন আসামিপক্ষের আইনজীবী। আদালত তাও মঞ্জুর করেন।

তিনি বলেন, কোটা সংস্কার আন্দোলন চলাকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ভিসির বাসা ভাঙচুর, পুলিশের কর্তব্য কাজে বাধা ও আইসিটি আইনে দায়র করা তিন মামলায় তাদের জামিন আবেদন করা হয়। এর মধ্যে শাহবাগ থানার আইসিটি আইনে ও ভিসির বাসা ভাঙচুরের মামলায় রাশেদের জামিন আবেদন করা হয়। ভিসির বাসা ভাঙচুরের মামলায় জামিনের আবেদন করা হয় সুহেল, মশিউর ও জসিমের। এছাড়া পুলিশের কর্তব্য কাজে বাধা দেয়ার ঘটনায় করা মামলায় জামিনের আবেদন করা হয় ফারুক ও তরিকুলের। এ ছাড়াও ভাঙচুর ও আইসিটি আইনের মামলায় জামিনের আবেদন করা হয় রাতুলের।


এদিকে নিরাপদ সড়ক আন্দোলন চলাকালীন দুই ছাত্রের মৃত্যু নিয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে রাজধানীর রমনা থানায় কোটা সংস্কার আন্দোলনের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক লুৎফুন্নাহার লুনার বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনে একটি মামলা দায়ের হয়। তাকেও আজ জামিন দেয়া হয়েছে। তবে একই ঘটনায় গ্রেফতার হওয়া  অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদের জামিন মেলেনি।


ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে তাকে আদালতে হাজির করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। এ সময় মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে রাখার আবেদন করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। অপরদিকে তার আইনজীবী জামিনের আবেদন করেন।

শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম মাহমুদা বেগম জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।