ভারত থেকে দুই হাজার মে:ও: বিদ্যুৎ আমদানির সিদ্ধান্ত


, | Published: 03:50 PM, August 30, 2018

IMG

চলতি বছরে ভারত থেকে দুই হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানীর নীতিমালা চূড়ান্ত বলে জানিয়েছেন বিদ্যুত প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। ভারত থেকে এখন প্রায় ৭০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানি করে বাংলাদেশ। আঞ্চলিক সহযোগীতায় সার্কভুক্ত দেশগুলোর সাথে ক্রসবর্ডার বিদ্যুৎ আমদানির পরিমাণ আরও বাড়বে বলেও জানান, প্রতিমন্ত্রী।

ভারত থেকে ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানি প্রথম শুরু হয় ২০১৬ সালে। কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা দিয়ে সঞ্চালন লাইনের মাধ্যমে এই বিদ্যুৎ আমদানি করছে বাংলাদেশ। এ বছর ভারত থেকে নতুন করে আরো ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানির কথা রয়েছে।

কিন্তু ভারতের বিক্রয় নীতি চূড়ান্ত না হওয়ায় এই আমদানি প্রক্রিয়া জটিলতার মধ্যে পড়ে। ফলে বিদ্যুৎ কেনার বিষয়টি চূড়ান্ত করা সম্ভব হয় নি এতদিন। বিদ্যুৎ বিভাগ বলছে, ভারত নতুন করে ক্রস বর্ডার ট্রেড অব ইলেক্ট্রিসিটি ট্রেড আইন প্রয়ণন করার কারণেই কিছুটা জটিলতার সৃষ্টি হয়। ফলে দেশটি থেকে বিদ্যুৎ রফতানির যেসব প্রক্রিয়া রয়েছে, তার সবক’টি ঝুলে যায়।তবে এখন আর জটিলতা নেই বলছে বিদ্যুত বিভাগ।

বিহার ও আসামকে সংযুক্ত করা গ্রিড লাইন দিয়ে আরও এক হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদনি হবে বলে জানায় বিদ্যুৎ বিভাগ। এছাড়া, ভারতের মধ্যে আদানীর গ্রুরুপের স্থাপন করা বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে আরও এক হাজার ৬০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানি করবে বাংলাদেশ।

এদিকে সম্প্রতি বিদ্যুৎ খাতে সহযোগিতা বাড়াতে নেপালের সঙ্গে সমঝোতা স্মারক সই করেছে বাংলাদেশ। এদিকে ভূটানে জলবিদ্যুৎ প্রকল্প নির্মাণ করে তা থেকে বিদ্যুৎ আমদানির জন্য শিগগীরই সমঝোতা স্মারক সই করবে বাংলাদেশ।