বাসের ধাক্কায় শিশু আকিফার মৃত্যুর ঘটনায় বাস চালক রিমান্ডে


, | Published: 06:36 PM, September 19, 2018

IMG

কুষ্টিয়ায় মায়ের কোলে থাকা আট মাস বয়সী শিশু আকিফাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়া ঘাতক গঞ্জেরাজ পরিবহনের চালক, হত্যা মামলার প্রধান আসামী, মহিত মিয়া ওরফে খোকনকে (৩৫) দুইদিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টায় কুষ্টিয়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল আদালতের বিচারক এম এম মোর্শেদ এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কুষ্টিয়া মডেল থানার উপ-পরিদর্শক সুমন কাদেরী চালককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচদিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে আবেদন করলে দীর্ঘ শুনানি শেষে বিজ্ঞ বিচারক দুইদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এ সময় রাষ্ট্রপক্ষে কুষ্টিয়া কোর্টের জেনারেল রেজিষ্ট্রার   অফিসার (জিআরও) আজাহার উদ্দিন ও আসামী পক্ষে এ্যাড. নুরুল ইসলাম দুলাল ও এ্যাড. সুব্রত পাল উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত গত ২৮ বেলা পৌনে ১২টার দিকে রাজশাহী থেকে ফরিদপুরের উদ্দেশ্য ছেড়ে আসা গঞ্জেরাজ পরিবহনের একটি বাস শহরের চৌড়হাস মোড়ে থেমে থাকা অবস্থায় হঠাৎ কোন হর্ণ ছাড়াই চালক খোকন বাসটি চালিয়ে দেন। এ সময় বাসের ধাক্কায় মায়ের কোল থেকে রাস্তার উপর ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হয় শিশু কন্যা আকিফা। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ৩০ আগষ্ট মারা যায় শিশু আকিফা। আকিফা কুষ্টিয়া শহরের চৌড়হাস এলাকার সবজি ব্যবসায়ী হারুন উর রশিদের মেয়ে।

এ ঘটনায় ওই দিন রাতে নিহত আকিফার পিতা হারুন উর রশীদ বাদী হয়ে কুষ্টিয়া মডেল থানায় বাসের চালক খোকন, সুপারভাইজার ইউনুস মাষ্টার এবং বাসের মালিক জয়নুলকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় গত ১২ সেপ্টেম্বর রাতে ফরিদপুর থেকে চালক খোকনকে আটক করে র‌্যাব। পরদিন কুষ্টিয়া মডেল থানা পুলিশের কাছে চালককে হস্তান্তর করে র‌্যাব।