ফাইনালে চোখ রেখে ভুটান যাচ্ছে অনূর্ধ্ব-১৮ নারী ফুটবল দল


, | Published: 09:15 PM, September 25, 2018

IMG

কোনো বিশ্রাম নেই নারী ফুটবলারদের। একটার পর একটা টুর্নামেন্ট লেগেই আছে। দুই দিন আগে শেষ হয়েছে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইয়ের প্রথম পর্ব। বুধবার মেয়েরা যাচ্ছেন ভুটান। এবারের টুর্নামেন্ট সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ চ্যাম্পিয়নশিপ। এটি দক্ষিণ এশিয়ার মেয়েদের ফুটবলে নতুন টুর্নামেন্ট।

গত বছর ডিসেম্বরে ঢাকায় সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবলে চ্যাম্পিয়ন হওয়া মেয়েরা মাস তিনেক পর খেলতে গিয়েছিল হংকংয়ে একটি আমন্ত্রণমূলক টুর্নামেন্ট। সেখান থেকেও চ্যাম্পিয়ন হয়ে ফিরেছিলেন মারিয়া-আঁখিরা। এই তো গত আগস্টে ভুটানে তারা খেলে এসেছে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপ। হয়েছে রানার্সআপ।

টুর্নামেন্টের পোশাকি নাম আলাদা হলেও বাংলাদেশের মেয়েরা বলতে গেলে একটি দলই খেলে সব টুর্নামেন্ট। কিছু খেলোয়াড় অদল-বদল হয় মাত্র। ঢাকায় শেষ হওয়া অনূর্ধ্ব-১৬ টুর্নামেন্টের ১৩ জনই থাকছেন ভুটানগামী দলে। এখানেও মারিয়া, আখি, মনিকা, তহুরা, আনুচিং, আনাই, সাজেদা, শামসুন্নাহার-পরিচিত সব মুখ।

তবে বয়সের কারণে অনূর্ধ্ব-১৬ দল থেকে বাদ পড়া কৃষ্ণা, সানজিদা, রত্না, স্বপ্না, মৌসুমিরা যোগ হবেন অনূর্ধ্ব-১৮ দলে। প্রথম টুর্নামেন্ট বলে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার কথা জোর দিয়ে বলছেন না কোচ কিংবা অধিনায়ক। তবে ফাইনাল খেলতে চান লাল-সবুজ জার্সিধারী মেয়েরা।

মেয়েদের ফুটবলে অধিনায়ক বলতে সাবিনা খাতুন, কৃষ্ণা রানী সরকার ও মারিয়া মান্ডা। তবে নতুন টুর্নামেন্টে নতুন অধিনায়ক পাচ্ছে বাংলাদেশ। অনূর্ধ্ব-১৮ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশের অধিনায়ক রংপুরের মিসরাত জাহান মৌসুমী।

সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু হবে ২৮ সেপ্টেম্বর ভুটানের থিম্পুতে। অংশ নিচ্ছে দুই গ্রুপে ৬ দেশ। বাংলাদেশ খেলছে ‘বি’ গ্রুপে নেপাল ও পকিস্তানের সঙ্গে। ‘এ’ গ্রুপের দল ভারত, ভুটান ও মালদ্বীপ।

গ্রুপ পর্বে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ৩০ সেপ্টেম্বর। দ্বিতীয় ম্যাচ নেপালের বিরুদ্ধে ২ অক্টোবর। টুর্নামেন্টের দুটি সেমিফাইনাল ৫ অক্টোবর। ৭ অক্টোবর তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচ ও ফাইনালের মধ্যে দিয়ে শেষ হবে টুর্নামেন্ট।

টুর্নামেন্টের সূচি

২৮ সেপ্টেম্বর : ভারত-ভুটান

২৮ সেপ্টেম্বর : নেপাল-পাকিস্তান

৩০ সেপ্টেম্বর : ভুটান-মালদ্বীপ

৩০ সেপ্টেম্বর : বাংলাদেশ পাকিস্তান

০২ অক্টোবর : মালদ্বীপ-ভারত

০২ অক্টোবর : বাংলাদেশ-নেপাল

০৫ অক্টোবর : সেমিফাইনাল

০৭ অক্টোবর : তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ও ফাইনাল