বিশ্ব পর্যটন দিবস আজ


, | Published: 12:18 PM, September 27, 2018

IMG

বিশ্ব পর্যটন দিবস আজ। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি বাংলাদেশ। পর্যটনের বিপুল সম্ভাবনা রয়েছে দেশজুড়ে। তবু আজও কি গড়ে তোলা গেল পর্যটনবান্ধব পরিবেশ? কতটা কাজে লাগানো গেল, এই খাতকে?

পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত আমাদের কক্সবাজারে। প্রকৃতির এই দান যে কোনো দেশের জন্য মহামূল্য সম্পদ। নিঃসন্দেহে বিশাল সম্ভাবনাময়ও। অথচ কক্সবাজারকে বিশ্ব দরবারে তুলে ধরতে সরকারের নেই তেমন দৃশ্যমান উদ্যোগ। অনুন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা, অপকল্পিত স্থাপনা, ঝাউবন দখল এবং হালের রোহিঙ্গা সমস্যা বিদেশি পোর্যটকদের বিমুখ করছে।

তবু আশা, সরকারি পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হলে অদূর ভবিষ্যতে কক্সবাজারই হবে বিশ্বের অন্যতম পোর্যটন নগরী। বিদেশি পোর্যটকদের আকর্ষণ করতে হলে, তাদের প্রত্যাশিত সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিতের বিষয়টি এড়িয়ে যাওয়ার অবকাশ আর নেই।

ঘন সবুজ বন আর পাহাড়, ঝর্ণায় সমৃদ্ধ বান্দরবান, দেশের আরেক আকর্ষণীয় স্থান। আছে, পাহাড়ি নদীতে ভেসে বেড়ানোর সুযোগ। দুর্গম পাহাড়ি গ্রামে ট্র্যাকিং করার। ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর বৈচিত্রময় জীবনধারায় মুগ্ধ হন অগণিত ভ্রমণপিপাসুরা।

পর্যটনের এত সম্ভবনার মাঝেও, সড়ক যোগাযোগে ঝুঁকি, নিরাপত্তার অভাব এবং থাকা ও খাবার সমস্যা আজও পুরোপুরি কাটিয়ে উঠতে পারেনি এ পার্বত্য জেলা।

বান্দরবানে পর্যটন শিল্পের বিকাশে নানা উদ্যোগের কথা জানিয়েছে প্রশাসন। নতুন নতুন স্পটও মিলছে। যা আকর্ষণ করবে অ্যাডঞ্চোরপ্রিয়দের। প্রত্যাশা, পর্যটকদের প্রিয় ভূমি হোক, এই ব-দ্বীপ। সবুজ-শ্যামল আমাদের দেশটা।