রোহিঙ্গা পুনর্বাসনে প্রস্তুত ভাসানচর, উদ্বোধনের অপেক্ষা


নিজস্ব প্রতিবেদক,সেন্ট্রাল ডেস্ক | Published: 07:10 PM, October 11, 2018

IMG

নোয়াখালীর ভাসানচরে রোহিঙ্গা পুনর্বাসনের সব প্রস্তুতি শেষ হয়েছে, এখন শুধুমাত্র উদ্বোধনের অপেক্ষা। প্রধানমন্ত্রী যেদিন সময় দেবেন, সেদিনই রোহিঙ্গা স্থানান্তর কার্যক্রম উদ্বোধন করা হবে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া। আজ বৃহস্পতিবার সকালে সচিবালয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে মায়া বলেন, ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের বসবাসের জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি আমরা শেষ করেছি। প্রথম পর্যায়ে আমরা ২৫ হাজার রোহিঙ্গা সেখানে নিতে পারব। পর্যায়ক্রমে মোট ১ লাখ রোহিঙ্গাকে সেখানে নেওয়া হবে। এমন সংক্ষিপ্ত সময়ে ভাসানচরকে বাসোপযোগী করে তুলতে পারায় আমি নৌবাহিনীকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে ত্রাণমন্ত্রী বলেন, আপনারা সেখানে গেলে দেখতে পারবেন, জায়গাটি কী ছিল এবং কিভাবে একে বসবাসের উপযোগী করে তোলা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ‘তবে আমরা স্পষ্টভাবে বলতে চাই, এখানে রোহিঙ্গাদের বসবাসের যে আয়োজন করা হয়েছে, তার সবই অস্থায়ী। তারা মিয়ানমারের নাগরিক, তারা যেন মিয়ানমারে সম্মানের সঙ্গে ফিরে যেতে পারে, এটাই আমরা চাই।’ 

উল্লেখ্য, গত বছরের অক্টোবর থেকে মিয়ানমারের  উত্তর রাখাইন রাজ্যে সংখ্যালঘু মুসলিম রোহিঙ্গাদের গ্রামে অভিযান শুরু করে দেশটির মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও সীমান্ত পুলিশ। এ সময় রোহিঙ্গাদের কয়েকটি গ্রাম আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়। এ ছাড়া সেনাসদস্যদের বিরুদ্ধে রোহিঙ্গা নারী-মেয়েদের ধর্ষণ, শিশুদের হত্যার অভিযোগ রয়েছে। মিয়ানমারের সেনাসদস্যদের অভিযানে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয় প্রায় ৭ লাখ  রোহিঙ্গা। সেখান থেকে ২৫ হাজার রোহিঙ্গা পরিবারকে ভাসানচরে নেওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছে বাংলাদেশ সরকার।