নিলুফা ভিলা থেকে দুই নারীর আত্মসমর্পণ, অভিযান সমাপ্ত


, | Published: 05:36 PM, October 17, 2018

IMG

নরসিংদীর মাধবদীতে জঙ্গি আস্তানা নিলুফা ভিলায় অবস্থান নিয়ে থাকা সন্দেহভাজন দুই নারী জঙ্গি আত্মসমর্পণ করেছেন বলে জানিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।
আর এর মধ্যে দিয়ে কোনো রক্তপাত ছাড়াই দীর্ঘ ৪১ ঘণ্টার অভিযানের সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে। আত্মসমর্পন করা দুই নারীর নাম খাদিজা ও মৌ।

বুধবার বেলা ৩টার দিকে কালো বোরখা পরা ওই দুই নারীকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ঘেরাওয়ের মধ্যে পুলিশের একটি অ্যাম্বুলেন্সে তোলা হয়। সে সময় তাদের মাথায় হেলমেট পরানো ছিল।

এর আগে সকালে পুলিশ বাড়িটির চারপাশ ঘিরে রেখে ড্রোন উড়িয়ে পুরো এলাকা পর্যবেক্ষণ শুরু করে। এরপর পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) প্রধান মনিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেছিলেন, চূড়ান্ত অভিযানের আগে সন্দেহভাজন জঙ্গিদের আত্মসমর্পণে বাধ্য করার সব ধরনের চেষ্টা তারা করবেন। যদি তাদের রাজি করানো না যায়, কেবল তখনই সোয়াট অভিযান শুরু করবে।

পরে বিকেলে ওই দুই নারী আত্মসমর্পণে রাজি হলে বিনা রক্তপাতেই শেষ হয় অভিযান।

এর আগে মাধবদীর সাত তলা ওই বাড়ি থেকে দুই কিলোমিটার দূরে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে মেহেরপাড়া ইউনিয়নের ভগীরথপুরে পাঁচ তলা একটি বাড়িতে মঙ্গলবার সোয়াটের অভিযানে গোলাগুলি ও বিস্ফোরণের মধ্যে দুইজন নিহত হন। তাদের একজন নারী, একজন পুরুষ। এদের সাথে আত্মসমর্পণ করা দুই নারীর যোগাযোগ ছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ।

জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে সোমবার রাত থেকে মাধবদী পৌরসভা ভবনের কাছে আফজাল হোসেন নামে এক ব্যক্তির মালিকানাধীন সাততলা ভবন, নিলুফা ভিলা ঘিরে রাখে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট। ওই এলাকায় জারি করা হয় ১৪৪ ধারা। পুরো এলাকায় সতর্ক অবস্থান নেয় পুলিশ। মাইকিং করে মহল্লার সবাইকে বাড়ির বাইরে ও ছাদে যেতে নিষেধ করা হয়। বাড়ির দরজা-জানালাও বন্ধ রাখতে বলা হয়। ৫০০ গজের ভেতরের বাসিন্দাদের অনেকে বাড়ি ফিরতে না পেরে আশপাশের মার্কেট ও মসজিদে অবস্থান করে।