ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে বিদায় নিলেন শুভ


, | Published: 09:22 PM, November 06, 2018

IMG

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার এক গ্রামে শ্বশুর বাড়িতে জামাইয়ের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার তুষভাণ্ডার ইউনিয়নের মহিলা কলেজের পাশে শ্বশুর বাড়ির একটি ঘর থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

মৃত আল আমিন ইসলাম শুভ (গৌরাঙ্গ ব্যার্নাজি (নব মুসলিম) কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার ললীত ব্যার্নাজির ছেলে। তিনি শ্বশুর বাড়িতে ঘরজামাই থাকতেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, তুষভাণ্ডার ইউনিয়নের আব্দুল্লাহর (বানিয়া) ছোট মেয়ে আফসানা আক্তার মনির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে তার। তারা দু’জনেই ঢাকায় একটি গার্মেন্টসে চাকরি করতেন। প্রেমের সম্পর্কের জের ধরে গত ১৪ এপ্রিল তারা দুজনেই বিয়ে করতে ঢাকায় একটি কাজী অফিসে যায়। সেখানে তার নাম গৌরাঙ্গ ব্যানার্জি থেকে আল আমিন ইসলাম শুভ রেখে তাদের বিয়ে হয়।

বিয়ের পর আল আমিনের গ্রামের বাড়ি কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে গেলে পরিবারের কেউ তাদের বিয়ে মেনে নেয়নি। পরে তারা সেখান থেকে চলে আসে মামার বাড়িতে। সেখানেও ঠাঁই হয়নি তাদের। এরপর থেকে আল আমিন ঘর জামাই হিসেবে বসবাস শুরু করেন শ্বশুর বাড়িতে। গত রোববার বিকেলে আল আমিনের স্ত্রী মনি স্বামীকে রেখে তার বড় বোনের বাড়িতে বাড়িতে বেড়াতে যান। এতে অভিমান করেন আল আমিন। ওই দিন বিকেল ৫টার দিকে তিনি তার ফেসবুক ওয়ালে ‘সারা জীবনের জন্য চলে যাচ্ছি সবাইকে ছেড়ে। দোয়া করিয়েন সবাই’ লিখে পোস্ট করেন। এরপর মঙ্গলবার সকালে ঘর থেকে পঁচা গন্ধ ছড়ালে এলাকার লোকজন দরজা ভেঙে দেখতে পায় তার ঝুলন্ত লাশ। পরে থানায় খবর দিলে ঘটনাস্থলে এসে আল আমিনের মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায় পুলিশ।

এ ঘটনায় কালীগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মকবুল হোসেন জানান, খবর পেয়ে আল আমিনের মরদেহটি উদ্ধার করে লালমনিরহাট মর্গে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।










গ্রামবাংলা বিভাগের আরও সংবাদ