একদিনে আ.লীগের মনোনয়নপত্র বিক্রীর আয় ৩ কোটি ৯৮ লাখ টাকা


, | Published: 12:08 AM, November 10, 2018

IMG

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মাঝে প্রথম দিনে আটটি বিভাগের ৮ বুথে মনোনয়ন বিতরণের মোট ফরম বিক্রি হয়েছে ১৩২৮টি। প্রত্যেকটি ফরমের মূল্য ৩০,০০০ হাজার টাকা করে মোট ৩ কোটি ৯৮ লাখ ৪০ হাজার টাকর ফরম বিক্রি হয়।


ঢাকা বিভাগে ফরম বিক্রি হয়েছে  ২০৬টি, চিটাগাং বিভাগে ২২১টি, রাজশহী বিভাগে ১৮৪টি বরিশাল বিভাগে ১৫৪টি, সিলেট বিভাগে ৭৮টি,রংপুর বিভাগে ১২৯ টি, খুলনা বিভাগে ১৯৫টি, ময়মনসিংহ বিভাগে ১৬১টি। বুথ সূত্র এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।


তবে এর আগে সন্ধ্যা সাতটায় আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ জানান, সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম বিক্রি হয়েছে ১৭০০টি এবং ৫টি জমা পড়েছে।


তার আগে আওয়ামী সভাপতি শেখ হাসিনার সন্ধ্যা ৬টা ৪০ মিনিটের দিকে তার বিশেষ সহকারী ও দলের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপকে ফোন করে মনোনয়ন ফরম বিতরণ ও জমাদানের খোঁজখবর নেন। গোলাপ সর্বশেষ অবস্থা দলীয় সভাপতিকে অবহিত করলে তিনি পুনরায় রাত ১০টা পর্যন্ত ফরম বিতরণ কার্যক্রম চালু করার নির্দেশনা দেন। এরপর পুনরায় আওয়ামী লীগের ফরম বিতরণের কাজ শুরু হয়। আগামীকাল পুনরায় সকাল ১০টায় ফরম বিতরণ ও জমাদান কার্যক্রম শুরু হবে।


শুক্রবার সকালে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোননয়ন ফরম বিতরণ দলী সভাপতি শেখ হাসিনার পক্ষে ফরম সংগ্রহ করে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন হয়।


আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার পক্ষে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন সংগ্রহ করেন গোপালগঞ্জের বাসিন্দা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য কাজী আকরাম উদ্দিন, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক শেখ আবদুল্লাহসহ স্থাননীয় আওয়ামী লীগের নেতারা। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ফরম তুলে দেন।


আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার পক্ষে গোপালগঞ্জ-৩ আসন থেকে ফরম তোলার বিষয়টি নির্দিষ্ট করে জানালেও অন্যটিরর সংসদীয় আসনের নাম বলা হয়নি। এ বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, ‘অন্যটি কালকে জানতে পারবেন। এরপর রংপুর-৬ সংসদীয় আসন থেকে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর পক্ষ থেকে ফরম সংগ্রহ করেন চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজ, হুইপ আতিকুর রহমান আতিক। ওবায়দুল কাদেরসহ আওয়ামী লীগ নেতারা ফরম হস্তান্তর করেন।


এরপর ওবায়দুল কাদেরের পক্ষে নোয়াখালী-৫ আসন থেকে ফরম সংগ্রহ করেন স্থানীয় নেতারা। আর আওয়ামী লীগের নতুন নির্বাচনী অফিসে আটটি বিভাগের আটটি বুথে ফরম বিতরণের কাজ চলছে।


মনোনয়নের ফরমের দাম ৫ হাজার টাকা বৃদ্ধির কারণ জানতে চাইলে এক প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, ‘এটা কোন প্রশ্ন হলো। নির্বাচনী কার্যক্রম পরিচালনা করতে কিছু খরচ হয় না। আওয়ামী লীগের তৃণমূলে অনেক গরীব প্রার্থী আছে, তাদেরকে আমাদের সাহায্য করতে হয়।’


মনোনয়ন ফরম সংগ্রহকে কেন্দ্র করে নেতাকর্মীদদের ভীষণ চাপে বিশৃঙ্খল পরিবেশের বিষয়ে কাদের সাংবাদিকদের বিষয়টিকে স্বাভাবিকভাবে দেখার অনুরোধ জানান। এবিষয়ে কাদের বলেন, ‘এবার মনোনয়ন ফরম কেনায় বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা আমরা লক্ষ করছি। আমরা ডিসিপ্লিন করার চেষ্টা করি কিন্তু আজকে ডিসিপ্লিন রাখার মতো অবস্থা নেই। কাজেই এটা স্বাভাবিকভাবে মেনে নেবেন।’