শিয়ালের কামড়ে ৭ আহত ১ জনের মৃত্যু, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ব্যবস্থা গ্রহন


, | Published: 11:09 PM, December 08, 2018

IMG

টাংগাইলের শখিপুরে শিয়ালের কামড়ে ১ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৮ শে অক্টোবর ভোর বেলা শিয়ালের কামড়ের শিকার হয়ে শফিকুল ইসলাম (৩৫) সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছেন। হাসপাতাল তার সার্বিক দেখাশোনা করছেন। 

অক্টোবর মাসে শখিপুরের শিয়ালের কামড়ের শিকার হন ৭ জন  এর মধ্যে ১ জনের মৃত্যুও হয়।

রোগ নিয়ন্ত্রন শাখার পরিচালক অধ্যাপক ডাঃ সানিয়া তহমিনার নির্দেশে শিয়ালের কামড়ের ঘটনার তাৎক্ষনিক তদন্তের জন্য  একটি বিশেষ তদন্ত টিম গঠন করা হয়। তদন্ত টিম শিয়ালের কামড়ে আক্রান্ত ব্যাক্তিদের বাড়ি গিয়ে রোগিদের সর্বশেষ শারীরিক অবস্থা নিরুপন করেন এবং উঠান বৈঠকের মাধ্যমে তাদেরকে আশ্বস্ত করেন।  

এবং উপজেলার মাঠ পর্যায়ের কর্মী দ্বারা আগামি ৬ মাস রোগিদের ফলোআপে রাখার পরিকল্পনা করা হয়। রোগ নিয়ন্ত্রন শাখা হতে আক্রান্ত সকল ব্যাক্তিকে আধুনিক চিকিৎসার যাবতীয় ব্যবস্থা নিশ্চিত সম্পন্ন করা হয়। পরিশেষে জনজীবনে প্রশান্তি ফিরিয়ে আনতে সাধারন জনগনকে  কুকুর/শিয়ালে আক্রান্ত রোগিদের নিয়ে করনীয়  বিষয় সম্পর্কে আলোচনা করা হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তদন্ত টিম পর্যবেক্ষনে একটি বিষয় লক্ষনীয় সকল রোগি চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে না গিয়ে ডিসপেনসারির দোকান থেকে ভ্যাকসিন নিচ্ছে ফলে প্রকৃত চিকিৎসা থেকে জনগণ বঞ্চিত হচ্ছে। ইতিমধ্যে অধিদপ্তর জনসচেতনতা তৈরির জন্য কিছু জরুরী পদক্ষেপ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

উপজেলার সকল চিকিৎসক ও সিনিয়র নার্সদের প্রানির কামড়ের আধুনিক চিকিৎসা বিষয়ক প্রশিক্ষণ এর ব্যাবস্থা করা।

জনসচেতনতা তৈরির জন্য ৩৭ টি কমিউনিটি ক্লিনিকের সিএইচসিপিদের প্রশিক্ষন এবং লিফলেট প্রদানের মাধ্যমে প্রচারনা অব্যহত রাখা হবে।

প্রান্তিক পর্যায়ে জনসচেতনতা তৈরির জন্য উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের চেয়ারম্যাম, স্কুল শিক্ষক, মসজিদের ইমাম ও স্থানিয় গন্যমান্য ব্যাক্তিদের সমন্বয়ে একটি মক্ত আলোচনার আয়োজন করা হবে। 

কুকুর, শিয়াল, প্রানীর কামড়ে আক্রান্ত হলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স অথবা সদর হাসপাতালে গিয়ে সুচিকিৎসা গ্রহন করুন পরিশেষে জীবন বাচান এই স্লোগান প্রান্তিক পর্যায়ের সকল জনগণের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে সকলে এক সাথে কাজ করছে।











স্বাস্থ্য বিভাগের আরও সংবাদ