ধর্ষকদের ধরিয়ে দিয়ে তরুণীর সাহসিকতার নজির


, | Published: 04:13 PM, November 07, 2017

IMG

সাহসিকতার অনন্য নজির গড়লেন চট্টগ্রামের এক তরুণী। বাসে ধর্ষিত হওয়ার পর পুলিশের কাছে ধরিয়ে দিলেন ধর্ষকদের। চুপ থাকলে অপরাধীরা অন্য কারো সম্ভ্রমহানী করবে, তাই সাহস করে নিজেই থানায় গিয়ে করেছেন মামলা।

সপ্তাহের প্রতি দিনেই কর্মব্যস্ততা। তাই ছুটির দিনে বান্ধবীদের নিয়ে চট্টগ্রামের পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকতে বেড়াতে গিয়েছিলেন এক পোশাককর্মী তরুণী। যাওয়ার সময় সব ঠিক থাকলেও, সন্ধ্যায় ফিরে আসার সময় ঘটে অঘটন। নিজের গন্তব্যে আসার আগেই বহদ্দারহাট এলাকায় নেমে যায় সব সহযাত্রী। বাস হয়ে যায় ফাঁকা।

আর সেই সুযোগে দরজা জানালা বন্ধ করে বাসটি বিভিন্ন রাস্তা ঘুরতে থাকে। এসময় বাসের ড্রাইভার সুমন ও হেলপার রিয়াদ মেয়েটির উপর চালায় পাশবিক নির্যাতন।

বাস থেকে নামিয়ে দেয়ার আগে তাকে দেখানো হয় ভয়-ভীতি। তবে নিজ বুদ্ধিমত্তায় ওই তরুণী আবারো দেখা করার কথা বলে চেয়ে নেন ধর্ষকদের মোবাইল নম্বর। পরে পরিবারের সঙ্গে নিয়ে মামলা করেন, সহযোগিতা নেন পুলিশের। তার বুদ্ধি আর সাহসীকতায় ধরা পড়ে ধর্ষক সুমন ও রিয়াদ।

ধর্ষক ড্রাইভার সুমন ও হেলপার রিয়াদ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছে। আর, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর কর্মকর্তারা সাধুবাদ জানিয়েছেন সাহাসী মেয়েটিকে।

সমাজ আর লোকলজ্জার ভয়ে এ ধরনের দুর্ঘটনা চেপে যাওয়াই যখন স্বাভাবিক প্রবণতা, পোশাকশ্রমিক একটি মেয়ের এই সাহসিকতা ও বুদ্ধিমত্তার দৃষ্টান্ত, সাহসী করবে নারীদের। দমন হবে দুবৃত্ত। আশা সচেতন মহলের।