মহেশখালীতে শুরু হচ্ছে ইতিহাস গড়া কর্মযজ্ঞ


, | Published: 08:38 AM, January 28, 2018

IMG

কক্সবাজারের মহেশখালীর মাতারবাড়িতে নির্মাণাধীন কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কাজের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি গণভবন থেকে রোববার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রকল্পটি উদ্বোধন করবেন বলে জানা গেছে।

জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন জানান, প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্স সফল করতে ইতোমধ্যে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। এ সময় জেলার সংসদ সদস্য ছাড়াও শীর্ষ রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় ক্ষতিগ্রস্ত লোকজন উপস্থিত থাকবেন।

তিনি আরও জানান, মাতারবাড়িতে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র ছাড়াও নির্মিত হচ্ছে এনার্জি পাওয়ার সী-পোর্ট। ইতোমধ্যে ১৮ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। ২০২৩ সালের মধ্যেই নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হবে এই সী-পোর্টের। এই পোর্ট কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র ও কোল পাওয়ারের কাজ সম্পন্ন হলে পর্যায়ক্রমে বাণিজ্যিক সী-পোর্ট হিসাবে ব্যবহৃত হবে এটি। এ প্রকল্পের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে আজ উদ্বোধন দিয়ে। 

দেশের এই বৃহৎ প্রকল্পের জন্য জাইকা ৫০ হাজার কোটি টাকা আর্থিক সহায়তা দিয়েছে। ০ দশমিক ১০১ শতাংশ হার সুদে এই টাকা বিনিয়োগ করেছে জাইকা। এটি দেশের বাইরে জাপানের সর্ববৃহৎ বিনিয়োগ। মাতারবাড়ি ছাড়াও মহেশখালীতে আরও বিদ্যুৎ প্রকল্প নির্মিত হবে। ১৫ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্য নিয়ে এ সব প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে সরকার। এ প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে স্থানীয়দের অনেকের পেশার পরিবর্তন হবে। তাই বেকার সমস্যার সমাধানের জন্য এ এলাকায় একটি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট গড়ে তুলবে সরকার।

উল্লেখ্য, প্রকল্পের কাজ আনুষ্ঠানিক কাজ গত ২৫ জানুয়ারি উদ্বোধন করার কথাছিল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন শেষে একটি জনসভা করার ঘোষণায় সফরসূচি নির্ধারণ করা হয়েছিল। কিন্তু আকাশে ঘন কুয়াশার কারণে তা স্থগিত করা হয়।