পুলিশ মেরে নেতা ছিনতাইয়ের মামলায় বিএনপির ৫৬ নেতাকর্মী রিমান্ডে


আদালত প্রতিবেদক, | Published: 08:19 PM, January 31, 2018

IMG

রাজধানীর কদম ফোয়ারায়, হাইকোর্টে এলাকায় পুলিশের প্রিজন ভ্যানে হামলা করে নেতাদের ছিনিয়ে নেওয়ার পৃথক চারটি মামলায় বিএনপির ৫৬ নেতাকর্মীকে রিমান্ডে নেওয়ার আদেশ দিয়েছেন আদালত।

বিএনপির গ্রেফতারকৃত নেতাকর্মীদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ডস চায় পুলিশ।

এদিকে, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, গতকাল পুলিশের ওপর যে হামলা হয়েছে, তা বিএনপি করেনি, করেছে অনুপ্রবেশকারীরা। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ধড়পাকড় অশনিসংকেত বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বুধবার সকাল থেকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়কে গোয়েন্দা পুলিশের কার্যালয়ে দফায় দফায় দেখা করতে আসেন তার পরিবারের সদস্যরা। আজই তাকে আদালতে তোলা হবে বলেই পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়। সকালে গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের বিষয়ে খোঁজ খবর নিতে মিন্টো রোডের গোয়েন্দা কার্যালয়ে এসে পুলিশের সাথে দেখা শেষে বিএনপির এই নেতার ছেলে বৌ ও দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নিপুন রায় চৌধুরী এ তথ্য জানান।

এদিকে সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে জরুরী সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির মাহসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দাবি করেন, সরকারের নীল নশকার অংশ গয়েশ্বর চন্দ্র রায়কে গ্রেফতার । এছাড়াও বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া যাতে নির্বাচনে অংশ নিতে না পারে সেজন্যই তাকে মিথ্যা মামলায় সাজা দেয়ার ব্যবস্থা করতে যাচ্ছে সরকার বলেও দাবি করেন তিনি।

মঙ্গলবার রাতে রাজধানীর গুলশানের পুলিশ প্লাজার সামনে থেকে সাদা পোশাকে গয়েশ্বর চন্দ্র রায়কে তুলে নিয়ে যায় পুলিশ।