প্রধানমন্ত্রী হতে বাবার দোয়া চাইলেন এরশাদ


সিলেট প্রতিনিধি, | Published: 07:46 PM, February 01, 2018

IMG

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিলেট সফরের দুইদিন পর হযরত শাহজালাল (র.) এর মাজার জিয়ারতের মধ্য দিয়ে সিলেট থেকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রচারণা শুরু করলেন সাবেক রাষ্ট্রপতি এবং জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ।

বৃহস্পতিবার বিকেল পৌনে তিনটায় মাজার জিয়ারত শেষে এরশাদ সাংবাদিকদের বলেন, প্রতিটি নির্বাচনেই আমরা শাহজালাল (র.) এর মাজার জিয়ারতের মাধ্যমে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করি। এবারও বাবার দোয়া নিতে এসেছি কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দকে নিয়ে। বাবার কাছে দোয়া চেয়েছি। আশা করি বাবার দোয়ায় জাতীয় পার্টি এবার সরকার গঠন করবে।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ বলেন, বর্তমান সংবিধানে যে পদ্ধতিতে সংসদ নির্বাচনের কথা বলা আছে, জাতীয় পার্টি সেই পদ্ধতির সরকারের অধীনেই নির্বাচনে অংশ নেবে। এ জন্য বিকল্প কোনো সরকার বা তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রয়োজন নেই। অতীতের তত্ত্বাবধায়ক সরকারগুলো আমাদের প্রতি সুবিচার করেনি।

নির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী সংখ্যা নিয়ে তিনি বলেন, জাতীয় পার্টি আগামী নির্বাচনে ৩০০ আসনেই প্রার্থী প্রস্তুত রেখেছে। জোটবদ্ধ হয়ে নির্বাচন করব কিনা, বা কয়টি আসনে প্রার্থী দেবো, সেটা নির্ভর করবে নির্বাচনকালীন রাজনৈতিক পরিস্থিতির ওপর।

এক প্রশ্নের জবাবে এরশাদ বলেন, জাতীয় পার্টি গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে বলেই আমরা ৯০ সালে ক্ষমতা হস্তান্তর করেছিলাম। আশা করেছিলাম নির্বাচনে সরাসরি অংশ নেবো। কারণ প্রতিবাদ জানানোর ভাষাই হচ্ছে নির্বাচন। কিন্তু আমাকে বন্দী করে রাখা হলো। আমার পরিবারের সদস্যদেরও বন্দী করা হলো। কারাগারে থেকেই আমি নির্বাচন করেছি। তখন সিলেটবাসী আমার এবং জাতীয় পার্টির প্রতি যে ভালোবাসা প্রদর্শন করেছেন তার জন্য আমি কৃতজ্ঞ। সিলেটবাসী তখন আমাকে ৮টি আসন উপহার দিয়েছিলেন।

তিনি আরও বলেন, এবারও আমি সিলেটবাসীর কাছে ছুটে এসেছি। হযরত শাহজালাল (র.) এর কাছ থেকে দোয়া নিয়ে আগামী নির্বাচনী প্রচারণা শুরু হলো জাতীয় পার্টির। আমি আশাবাদী, এবার আমি নিরাশ হবো না। এবার সরকার গঠন করবো।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- জাপা মহাসচিব রুহুম আমীন হাওলাদার এমপি, জাপার কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, প্রেসিডিয়াম সদস্য বন ও পরিবেশমন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমেদ, স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙা, বিরোধীদলীয় হুইপ মো. সেলিম উদ্দিন এমপি, ইয়াহইয়া চৌধুরী এহিয়া এমপি প্রমুখ।