মাত্র ১.৯ শতাংশ গ্রাহক পাবেন ফোর জি সুবিধা


, | Published: 03:31 PM, February 19, 2018

IMG

দেশে আনুষ্ঠানিক ভাবে চালু হচ্ছে মোবাইল ফোনের ফোর জি সেবা। তবে গ্রাহকরা কতটা প্রস্তুত মোবাইল ইন্টারনেটের এই সর্বশেষ প্রযুক্তি ব্যবহারে?

বিটিআরসির সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী দেশে প্রায় সাড়ে ১৪ কোটি মোবাইল ফোন সংযোগ রয়েছে। এর মধ্যে মোবাইল নেটওয়ার্কের মাধ্যমে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংযোগ সংখ্যা প্রায় সাড়ে সাত কোটি। মোবাইল ফোন আমদানীকারদের সংগঠন বিএমপিআইএর তথ্য অনুযায়ী গত পাঁচ বছরে বাংলাদেশে প্রায় দুই কোটি ৭৯ লাখ স্মার্ট ফোন বিক্রি হয়েছে। আর মোবাইল অপারেটরদের সংগঠন অ্যামটবের গবেষণা অনুযায়ী মোট ব্যবহৃত স্মার্টফোনের মাত্র ৮ থেকে ১০ শতাংশ ফোর জি নেটওয়ার্ক কাজে লাগিয়ে গ্রাহকদের উচ্চ গতির ইন্টারনেট সেবা দিতে সক্ষম। অর্থাৎ সারা দেশে ফোর জির ইন্টারনেট চালু হলেও মোট মোবাইল গ্রাহকের মাত্র ১.৯ শতাংশ মানুষ ফোর জির সুবিধা পাবেন।

দেশের মোবাইল হ্যান্ডসেটের এমন প্রেক্ষাপটে কিছুটা আগে ভাগেই ফোর জি চালুর ঘোষণা দিয়েছে গ্রামীণ ফোন। অপর দুই প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক ও রবি আসছে একুশে ফেব্রুয়ারির আগেই। তবে প্রাথমিক ভাবে শুধু ঢাকা শহরেই সীমাবদ্ধ থাকছে দ্রুতগতির মোবাইল ইন্টারনেটের এই সেবা।

ফোর জির নিলাম থেকে সরকার আয় করেছে প্রায় সোয়া পাঁচ হাজার কোটি টাকা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন ফোর জি চালু হবার পর এই খাত থেকে সরকারের উপার্জন দশ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাবে। তবে আদতে কতটা লাভবান হবেন সাধারণ মানুষ?

টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, প্রথমে বেশীরভাগ মানুষই এই সেবা পাবে না। শুধু ঢাকা শহরের মানুষ পেতে পারে। তবে আস্তে আস্তে সারা দেশের মানুষকে ফোর জি সেবার আওতায় আনা হবে।
ছয় মাসের মধ্যে বাংলাদেশে ফোর জি প্রযুক্তির মোবাইল উৎপাদন শুরু হবে বলেও জানিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী।