টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাহাড়ে আগুন, হতাহতের আশঙ্কা


কক্সবাজার প্রতিনিধি, কান্ট্রি ডেস্ক | Published: 07:03 PM, March 08, 2018

IMG

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় রোহিঙ্গা ক্যাম্প সংলগ্ন সংরক্ষিত পাহাড়ি বনের ৪০টি স্থানে আগুন দেওয়া হয়েছে, যা নাশকতা বলে ধারণা করা হচ্ছে। আগুন নেভাতে উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ, বন বিভাগ, ফায়ার সার্ভিসের কর্মীসহ স্থানীয় লোকজন চেষ্টা চালাচ্ছে। আগুন নেভাতে গিয়ে তিনজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তবে তাদের নাম জানা যায়নি।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে টেকনাফের পৌরসভার নূর আহমেদ গুনা থেকে নাইট্যংপাড়া এলাকার পাহাড়ি বনে এ ঘটনা ঘটে।

বন বিভাগ ও উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকালে পৌর এলাকার পাহাড়ে প্রায় আড়াই কিলোমিটার এলাকায় জুড়ে আগুন জ্বলতে শুরু করে। আগুন শতাধিক একরের বেশি বনাঞ্চলসহ লোকলয়ে দিকে দ্রুত গতিতে ছড়িয়ে পড়ে। এতে হাজার হাজার গাছপালা, সবজিক্ষেত পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। দমকা হাওয়ায় আগুন দাবানলের আকৃতি ধারণ করে ছড়িয়ে পড়ছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পায়ে হেঁটে পাহাড় পেরিয়ে ঘটনাস্থলে যেতে একটু সময় লাগছে। ফায়ার সার্ভিসের দু'টি গাড়ি ওই এলাকায় পৌঁছালেও দুর্গম পাহাড়ে উঠতে না পারায় আগুন নেভাতে সমস্যা হচ্ছে।

টেকনাফ স্টেশনের ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা কিরিতি বড়ুয়া বলেন, পাহাড়ে আগুন লাগার খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা। তারা আগুন নেভাতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। লোকালয়ে ছড়িয়ে পড়া আগুন নিয়ন্ত্রণ করা গেলেও পাহাড়ের আগুন নেভাতে বেগ পেতে হচ্ছে। বিকাল ৪টা পযর্ন্ত কয়েকটি স্থানের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে। বাকি কয়েকটি পয়েন্টের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা ও তা আশপাশের জনবসতিতে যাতে ছড়িয়ে না পড়ে সে চেষ্টাই করা হচ্ছে।

টেকনাফের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রবিউল হাসান বলেন, কারা আগুন দিয়েছে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। হঠাৎ করে আগুন ছড়িয়ে পড়ায় লোকালয়ের কিছু অঞ্চল ঝুঁকিতে ছিল। এখনও পাহাড়ে আগুন জ্বলছে এবং তা নেভানোর চেষ্টা চলছে।










গ্রামবাংলা বিভাগের আরও সংবাদ