গাজীপুর সিটি নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত প্রশাসন


, | Published: 04:22 PM, June 25, 2018

IMG

প্রচার প্রচারণা শেষ। উৎসবমুখর গাজীপুর এখন শান্ত। অপেক্ষা ভোট উৎসবের। আগামীকাল নতুন নগরপিতা নির্বাচনে ভোট-গ্রহণ হবে। জয় নিয়ে আশাবাদী বড় দুই দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মেয়র প্রার্থীরা। আর সুষ্ঠু নির্বাচনরে জন্য প্রস্তুত প্রশাসন।

২০১৩ সালের ১৬ জানুয়ারি প্রতিষ্ঠার পর দ্বিতীয় বারের মতো নির্বাচন হচ্ছে গাজীপুর সিটি করপোরেশনে। আয়তনে দেশের সবচেয়ে বড় এই সিটি করপোরেশনের আয়তন ৩২৯ দশমিক ৯০ বর্গকিলোমিটার। নির্বাচনকে ঘিরে আনন্দমুখর এখানকার পরিবেশ।

গাজীপুর সিটি করপোরেশনে মোট সাধারণ ওয়ার্ড ৫৭টি। সংরক্ষিত ওয়ার্ড সংখ্যা ১৯টি। মোট ৪২৫টি ভোট কেন্দ্রে ভোট দিবেন ১১ লাখ ৩৭ হাজার ৭৩৬ জন ভোটার। যার মধ্যে পুরুষ পাঁচ লাখ ৬৯ হাজার ৯৩৫ আর মহিলা ভোটার পাঁচ লাখ ৬৭ হাজার ৮০১ জন।

প্রথম দফায় জটিলতা কাটিয়ে ২৬ জুন নির্ধারিত হয় নির্বাচনের তারিখ। মেয়র পদে লড়াই করছেন ৭ জন। সাধারণ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ২৫৪ আর সংরক্ষিত নারী আসনে ৮৪ জন।

রিটার্নিং কর্মকর্তা রকিব উদ্দিন মণ্ডল জানিয়েছেন, মোট ৪২৫ জন প্রিজাইডিং আর দুই হাজার ৭৬১ জন সহকারী প্রিজাইডিং এবং পাঁচ হাজার ৫২২ জন পোলিং অফিসার ভোট গ্রহণ করবেন। তিনি জানান, সার্বিক প্রস্তুতি শেষ করেছে কমিশন।

এদিকে ভোট গ্রহণের জন্য সর্বাত্মক ভাবে প্রস্তুত জেলা প্রশাসন। মাঠে থাকবে কয়েক হাজার আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

ভোটাররা জানিয়েছেন, কারো আশ্বাসে নয়-যোগ্য প্রার্থীকেই ভোট দিবেন তারা। এদিকে ভোটারদের মন জয় করতে পেরেছেন বলে মনে করেন আওয়ামী লীগ আর বিএনপি, দু দলের প্রার্থীই।